সোনাকান্দা স্টেডিয়ামে নির্বাচনী সমাবেশে মির্জা ফখরুল, কাজী-আজাদ-কাশেমী-আকরাম নয়, এরা সবাই খালেদা জিয়া

412

বিশেষ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের ৪ জনকে বেগম খালেদা জিয়ার প্রার্থী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার সোনাকান্দা স্টেডিয়ামে এক বিশাল নির্বাচনী সমাবেশে একথা বলেন তিনি। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জাফরুল্লাহ চৌধুরী।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছিলাম, সেই যুদ্ধ ছিলো গণতন্ত্র উদ্ধরের জন্য। সেই গণতন্ত্রকে বর্তমান সরকার উধাও করে দিয়েছে। এখন এক ব্যক্তি, এক দলের শাসন। ওদের কি কি আমরা বাঁচতে দিবো? না বাঁচতে দিবো না।
তিনি আরো বলেন, ‘দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, তাকে যখন জেলে যেতে হবে? তার আগে আমাদের সকলের সাথে বসেছিলো। তিনি বলেছিলেন, আমাকে আজ কারাগারে নেওয়া হবে। কিন্তু কারাগার আমি ভয় পাই না। আমি আজীবন লড়াই করেছি, গণতন্ত্রের জন্য। আজকে বাংলাদেশকে মুক্ত করতে হলে তোমরা জাতীয় ঐক্যে ঘটন করো। সেই জাতীয় ঐক্যো আমরা তৈরি করেছি। তারই প্রার্থী হচ্ছেন নারায়ণগঞ্জ-১ থেকে কাজি মনির ভাই, ৫ থেকে আমাদের আকরাম সাহেব, ৪ থেকে কাশেমী ভাই, ২ থেকে নজরুল ইসলাম আজাদ। এই প্রার্থীদের আপনাদের মনে করতে হবে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রার্থী।
নির্বাচন কিন্তু তারা করছে না, মনে করতে হবে বেখম খালেদা জিয়া নির্বাচন করছে। আপনি একটি ভোট দিবেন, সেই ভোটে খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে। এটা মনে করে ৩০ ডিসেম্বর সকালে পাড়া প্রতিবেশী সকলে মিলে ধানের শীষে ভোট দিবেন।’
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার, সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় সম্পাদক কমরেড সাইদ আহম্মেদ, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রার্থী এসএম আকরাম, জেলা বিএনপির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের প্রার্থী কাজি মনির, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের প্রার্থী নজরুল ইসলাম আজাদ ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের প্রার্থী মনির হুসাইন কাশেমী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক এটিএম কামালসহ বিএনপির জেলা ও মহানগর বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ।