সোনারগাঁয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীরা ভোটার ফেলে ছুটছেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের কাছে

365

তৌরব হোসেন, সোনারগাঁ প্রতিনিধিঃ আগামী ৩১শে মার্চ সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তারা। সোনারগাঁয়ে এবার ১১৮টি কেন্দ্রের ৭৫০টি বুথে ভোট গ্রহন করা হবে। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা প্রায় ৩ লক্ষ ৩ হাজার ৮৭১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৬ হাজার ৭ শত ১ জন, নারী ভোটার ১ লাখ ৪৭ হাজার ১শত ৭০জন।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন জানান, এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ২জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। ৩ লাখ ৩ হাজার ৮৭১ জন ভোটারের জন্য ১১৮টি স্থায়ী কেন্দ্র ও ৭৫০টি বুথের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি কেন্দ্রে ১জন করে প্রিজাইডিং অফিসার এবং তাদেরকে সহায়তার জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে ২জন করে মোট ২৩৬জন ও পোলিং অফিসার থাকবে ১ হাজার ৭৫২জন। কে, কোথায় ও কোন কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করবে সেজন্য প্রত্যেককে ২০ মার্চে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে।
তবে, অনেকে অভিযোগ করেছেন নির্বাচন অফিস থেকে চিঠি দেয়ার পর বিভিন্ন প্রার্থীরা ছুটছেন প্রিজাইডিং অফিসারদের কাছে। আবার অনেক অতি উৎসাহি প্রিজাইডিং অফিসার ছুটছেন তাদের পছন্দের প্রার্থীর কাছে বিশেষ সুবিধা নিতে।
দনাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন প্রিজাইডিং অফিসার জানান, তারা নির্বাচন অফিস থেকে চিঠি পাওয়ার পর চেয়ারম্যান প্রার্থী, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সমর্থকরা আসছেন তাদের কাছে বিশেষ সুবিধার জন্য। এজন্য তারা নগদ অর্থসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দেয়ারও আশ্বাস দিচ্ছেন। আবার অনেক প্রার্থী বলছেন, নির্বাচনে জয়ী হলে তাদের দেখভাল ও পছন্দের জায়গায় বদলীসহ রাজনৈতিক সুবিধাও দিবেন বলে জানিয়েছেন।
এদিকে কয়েকজন প্রার্থী জানান, কিছু প্রার্থী সরকারী দলের মনোনয়ন পেয়ে দলের ¶মতা ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রিজাইডিং অফিসারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে বিশেষ সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন জানান, এখনও পর্যন্ত এমন কোন অভিযোগ আমরা পাইনি। কারো বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।