ইটভাটার মালিকের লাঠিয়াল বাহিনীর অস্ত্রাঘাতে রবিনসহ একাধিক আহতের ঘটনায় মামলা

337

বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে এ.বি.এফ নামে একটি ইটভাটার মালিকের লাঠিয়াল বাহিনীর অস্ত্রাঘাতে রবিনসহ ১০/১২জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার রাতে বন্দর উপজেলার গুকুলদাশের বাগ এলাকায় শালিসি বৈঠক শেষে নবীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে এসে এ ঘটনাটি ঘটে।
আহতরা হচ্ছে রবিন(২৬),রুবেল(২৮),আবু তাহের(৩০),সাদ্দাম(২৫),রাকিব(২২), লালন(২৬)সহ অজ্ঞাতনামা ১০/ ১২ জন।
তবে আহতদের মধ্যে রবিনের অবস্থা আশংকাজনক। আহতদের সকলকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনায় শহিদুল্লাহ মিয়া বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
জানা গেছে,দাশেরগাঁও গ্রামের সাহাবুদ্দিন মিয়ার ছেলে গোলাপসহ ৩ জন মিলে শাসনেরবাগ এলাকায় এ.বি.এফ নামে একটি ব্রিক ফিল্ড নির্মাণ করে। ওই ইটভাটায় ট্রাক আসা-যাওয়ার জন্য কোন রাস্তা নেই। দক্ষিন কুলচরিত্র এলাকার শহিদুল্লাাহ মিয়ার বাড়ির পাশের রাস্তা দিয়ে ট্রাক চলাচল করে। এতে শহিদুল্লাহসহ এলাকার লোকজন বাধা দেয়। এতে ইটভাটা মালিকপক্ষের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় উপজেলার গুকুলদাশের বাগ এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যার পর উভয় পক্ষ নিয়ে বিরোধ মিমাংসার জন্য বিচার শালিসী করেন মুছাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন। শালিসী শেষে করে রাত ১০টার দিকে শহিদুল্লাহ মিয়া ও তার লোকজন নবীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় ইটভাটার মালিকের লাঠিয়াল বাহিনী গোলাপ তার শ্যালক অনিক,জলিল মিয়ার ছেলে নবী,ইসমাঈলসহ ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী পূর্বপরিকল্পনানুযায়ী অস্ত্রসস্ত্রে সুসজ্জিত হয়ে অতর্কিতভাবে তাদের উপর হামলা চালায়। আহতদের চিৎকারে আশপাশের লোক এসে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পরে তাদের নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।