‘এখানে আমার মুরুব্বিরা থাকবে, মেয়েরা শান্তিতে হাটবে,কোন বেয়াদব থাকবে না-শামীম ওসমান

595

সময়ের চিন্তা ডট কমঃ নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান হুশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘এখানে আমার মুরুব্বিরা থাকবে, মেয়েরা শান্তিতে হাটবে, এখানে কোন বেয়াদব থাকবে না। এখানে বাসিন্দাদের মধ্যে কেউ যদি খারাপ থাকে তাহলে তার নাম শেষ কইরা দিমু, নাই কইরা ফালামু। যদি আপনারা চান, না চাইলে কিছু করার নাই।’
২০ই এপ্রিল শনিবার দুপুরে ফতুল্লার ভুইগড় এলাকার রূপায়ন টাউনের ফ্ল্যাট মালিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
গত বৃহস্পতিবার সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষকলীগের সভাপতি নাজিমউদ্দিনের বাহিনী ফ্ল্যাট মালিকদের উপর অতর্কিত হামলা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্দ বাসিন্দাদের সাথে মতবিনিময় করেন সাংসদ শামীম ওসমান। ক্ষুব্দ বাসিন্দাদের নিভৃত করে সাংসদ বলেন, ‘আমি আমার ডিউটি মতো কাজ করতাছি। কিন্তু আপনারা আপনাদের দায়িত্ব পালন করেন নাই। আপনারা আমাকে একবার জানাতে পারতেন। সমস্যাগুলোর কথা বইলা দেখতে পারতেন, একবার আমারে টেস্ট করতে পারতেন। কিন্তু আপনারা তা করেন নাই। না কানলে তো মায়েও দুধ দেয় না।’
রূপায়ন টাউনের বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আশে পাশে যা ঝামেলা হয় তা আমারে চুপ কইরা জানাইবেন। টেস্ট কইরা দেখেন না। যদি না হয় তখন বলবেন। এর বিনিময়ে কিছু চাই না। আমি এটুকু চাই আমার মৃত্যুর পরে যেন আপনার চোখে আমার জন্য পানি আসে। এটাই আমার চাহিদা। আমি আল্লাহ ছাড়া আমি কাউরে ভয় পাই না।’
প্রসঙ্গত, গত ১৯ই এপ্রিল শুক্রবার সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দিন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে বিসিএস কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজনকে পেটানোর অভিযোগ ফতুল্লা মডেল থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় অভিযুক্ত আসামি নাজিমউদ্দিন পলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে ফতুল্লা থানা পুলিশ। মামলায় বলা হয়েছে, ফতুল্লার রূপায়ন টাউনের ফ্লাট মালিকদের কাছ থেকে নাজিমউদ্দিন তার সন্ত্রাসী বাহিনীর মাধ্যমে দীর্ঘদিন যাবৎ চাঁদা আদায় করে আসছে। ফ্লাট মালিকরা চাঁদা প্রদানে অস্বীকৃতি জানালে গত ১৮ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নাজিমউদ্দিন তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ফ্লাট মালিকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ হামলায় সাবেক শিক্ষা পরিদর্শক (বিসিএস ক্যাডার) আব্দুস সালাম আজাদসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।