‘প্রত্যেকটা খেলার জবাব আমার কাছে আছে, হাতের মুঠোয় ডকুমেন্ট আছে-শামীম ওসমান

949

সময়ের চিন্রা ডট কমঃ নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সাংসদ শামীম ওসমান মন্তব্য করে বলেছেন-নারায়ণগঞ্জে অনেক খেলা হচ্ছে। তিনি আরও বলেছেন, ‘প্রত্যেকটা খেলার জবাব আমার কাছে আছে। হাতের মুঠোয় ডকুমেন্ট আছে, আমি ছাড়ি না। কারণ আমি সম্মানিত লোকের সম্মান নষ্ট করি না। চেষ্টা করি ধৈর্য ধারণ করতে।’
২০ই এপ্রিল শনিবার দুপুরে ফতুল্লার ভুইগড় এলাকার রূপায়ন টাউনের ফ্ল্যাট মালিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। গত বৃহস্পতিবার সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষকলীগের সভাপতি নাজিমউদ্দিনের বাহিনী ফ্ল্যাট মালিকদের উপর অতর্কিত হামলা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্দ বাসিন্দাদের সাথে মতবিনিময় করেন সাংসদ শামীম ওসমান।
স্থানীয়দের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, ‘আল্লাহর নামে কসম খইয়া বলতাছি, এই তল্লাতে আইসা যদি কেউ এমন কোনো কর্মকান্ড করে যার কারণে আমার মেয়েরা ভয় পায়, কোনো মুরুব্বী ভয় পায় কিংবা কেউ যদি ভয় পায় যে, আমি এই এলাকায় সুন্দরভাবে থাকতে পারবো কিনা- আমি তার বুকের মধ্যে হাত দিয়া বুকের পাটা ছিড়া ফালামু, তাকে ছাড়বো না। এটা আমার ওয়াদা যদি আমি বাঁইচা থাকি।’ ফ্ল্যাট মালিকদের একটি কমিটি গঠন করার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, এই কমিটির কথার বাইরে কোনো বাপের ব্যাটার সাহস হবে না কথা বলার।
নাজিম উদ্দিনকে সন্ত্রাসী উল্লেখ করে সাঁটানো ফেস্টুন ব্যানার দেখিয় শামীম ওসমান বলেন, ‘এসবের দরকার নাই, এসব নামিয়ে ফেলেন। অনেকেই আছে আমাদের নাম ভাঙ্গাইয়া অনেক কিছু কইরা ফালায়, আমরা জানিও না। তিন পুরুষ ধরে আমরা নারায়ণগঞ্জে কাজ করতাছি। কোনো অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না, সে সরকার হোক, প্রশাসন হোক, পুলিশ হোক। আমি ন্যায্য কথা বলতে আসছি, বলব।’
প্রসঙ্গত, গত ১৯ই এপ্রিল শুক্রবার সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দিন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে বিসিএস কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজনকে পেটানোর অভিযোগ ফতুল্লা মডেল থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় অভিযুক্ত আসামি নাজিমউদ্দিন পলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে ফতুল্লা থানা পুলিশ। মামলায় বলা হয়েছে, ফতুল্লার রূপায়ন টাউনের ফ্লাট মালিকদের কাছ থেকে নাজিমউদ্দিন তার সন্ত্রাসী বাহিনীর মাধ্যমে দীর্ঘদিন যাবৎ চাঁদা আদায় করে আসছে। ফ্লাট মালিকরা চাঁদা প্রদানে অস্বীকৃতি জানালে গত ১৮ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নাজিমউদ্দিন তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ফ্লাট মালিকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ হামলায় সাবেক শিক্ষা পরিদর্শক (বিসিএস ক্যাডার) আব্দুস সালাম আজাদসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।