র্যা ব-১১ এর অভিযানে নরসিংদীর পলাশ হতে ০১টি বিদেশী পিস্তল ও বিপুল পরিমান দেশীয় ধারালো অস্ত্রসহ ০১জন অস্ত্রধারী আটক

411

নিজস্ব প্রতিনিধিঃর্যা ব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইনশৃক্সখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য র্যা ব ফোর্সেস নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে র্যা ব-১১ এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। উক্ত অপরাধ দমনের লক্ষ্যে র্যা ব অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনার জন্য র্যা ব ফোর্সেস নিয়মিত সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে থাকে।

এরই ধারাবাহিকতায় গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র্যা ব-১১ এর একটি আভিযানিক দল ১৯ মে ২০১৯ খ্রিস্টাব্দে গভীর রাতে নরসিংদী জেলার পলাশ থানাধীন ডাংগা ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্গত ডাংগা গ্রামস্থ এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে নরসিংদী জেলার পলাশ থানা হতে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মোঃ আজাহার খন্দাকার (৫০) কে আটক করা হয়। এ সময় তার হেফাজত হতে ০১টি বিদেশী পিস্তল, ০২ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ ০১টি ভরা ম্যাগাজিন, ০১টি ধারালো কিরিস, ০২টি চাইনিজ কুড়াল, ০১ টি হাইসা ও ০৫টি রাম দা উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আসামী মোঃ আজাহার খন্দাকার নরসিংদী জেলার পলাশ থানার ডাংগা এলাকার বাসিন্দা। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাশ থানার ডাংগা এলাকায় চাঁদাবাজি, ছিনতাই, ডাকাতিসহ নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে রেখেছে। তার অত্যাচার ও নির্যাতনের ভয়ে সংক্ষুদ্ধ জনগন কথা বলার এবং এর প্রতিকার চাওয়ার সাহস পেতো না। প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রর্দশন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে নিয়মিত চাঁদাবাজি করত। এসকল সন্ত্রাসী কর্মকন্ডের সাথে জড়িত থাকার কারণে দীর্ঘদিন যাবৎ র্যা ব-১১ এর একটি বিশেষ দল তার উপর গোয়েন্দা নজরদারী চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও বিভিন্ন অপরাধে তার বিরুদ্ধে নরসিংদীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।