কলেজ ছাত্রীকে অপহরন চেষ্টার অভিযোগে ২জন গ্রেফতার

324

স্টাফ রিপোর্টারঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ঘুরতে এসে অপহরনের পর ব্লাক মেইলিংয়ের শিকার হয়েছেন এক কলেজ ছাত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন (সোনারগাঁ জাদুঘরে) ঘুরতে এসে ব্লাক মেইলিংয়ের শিকার হয়েছেন এক কলেজ ছাত্রী। বুধবার দুপুরে সোনারগাঁ রয়েল রিসোর্টের সামনে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

সোনারগাঁ থানা পুলিশসূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে সোনারগাঁ ডিগ্রী কলেজের এক ছাত্রী তার প্রেমিককে সাথে নিয়ে সোনারগাঁও জাদুঘরে ঘুরতে যায়। ঘুরাফেরা শেষে বাড়ি ফেরার পথে সোনারগাঁ রয়েল রিসোর্টের সামনে দিয়ে আসার সময় খাসনগর দিঘীরপাড় গ্রামের মৃত. ইয়াছিন মিয়ার ছেলে সবুজ, অর্জুন্দী গ্রামের শফি মিয়ার ছেলে সবুজ, উপজেলার মোগড়াপারা ইউপির বাড়ী মজলিশ গ্রামের আঃ রহমানের ছেলে জামাই কবিরসহ আরও কয়েকজন বখাটে তাদের পথরোধ করে কলেজ ছাত্রীকে জোরপূর্বক জামাই কবিরের শ্বশুর বাড়িতে নিয়ে একটি ক¶ে আটক করে রাখে। এরপর কিছু আপত্তিকর ছবি তুলে ব্লাক মেইলিং করে কলেজ ছাত্রীর নিকট টাকা দাবি করে। ছাত্রীটি টাকা দিতে অপরাগত হওয়ায় ঐ ছাত্রীর ব্যাগ থেকে জোর করে ৬ শত টাকা ও একটি মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। পরে সুযোগ বুঝে ছাত্রীটি পালিয়ে এসে কলেজে ফিরে শি¶ক ও অন্যান্য সহকর্মীদের সমস্ত ঘটনা খুলে বলে। এরপর কলেজ কর্তৃপক্ষ সোনারগাঁ থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ দিঘিরপাড় গ্রামে অভিযান চালিয়ে জামাই কবির ও মৃত. সামসুল হক মেম্বারের ছেলে নাছির ও সবুজকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে বিভিন্ন তবদিরে নাছিরকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রী বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, ছাত্রী অপহরনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত না থাকায় নাছির নামের একজনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।