ফেসবুকে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

369

সময়ের চিন্তা ডট কমঃ র‍্যাব-১১ এর অভিযানে ফেসবুকে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে মু›সীগঞ্জের লৌহজং থেকে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক করেছে র‍্যাব। র‍্যাবপ্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। র্যা ব শুরু থেকে যে কোন ধরনের অপরাধ, গুজব ছড়িয়ে জনমনে আতংক সৃষ্টিমূলক অপরাধ প্রতিরোধ এবং অপরাধী চক্রকে সনাক্ত ও গ্রেফতারের জন্য নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। সম্প্রতি বিভিন্ন ধরণের গুজব ছড়িয়ে জনমনে আতংক সৃষ্টির বিরুদ্ধে র্যাচব নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

র‍্যাব-১১ এর আওতাধীন এলাকায় এধরণের গুজব সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারী ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নজরধারী বৃদ্ধির পাশাপাশি বিভিন্ন স্থানে ক্রমাগত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় র্যাজব ১১ এর এক বিশেষ অভিযানে গত ২৭ জুলাই ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে ২১৩০ ঘটিকায় ফেইসবুকে গুজব রটিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানো এবং ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি নষ্ট করার চক্রান্তের অভিযোগে মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং থানাধীন দারুল উলুম খিদিরপাড়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মুফতী ছানাউল্লাহ চাঁদপুরী’কে আটক করা হয়। এ সময় তার ব্যবহৃত ০২ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত’কে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, মুফতী ছানাউল্লাহ চাঁদপুরীর বাড়ী চাঁদপুর জেলার মতলব থানাধীন বাকরা এলাকায়। সে গত ০১ বছর যাবৎ মু›সীগঞ্জ জেলার লৌহজং থানাধীন দার“ল উলুম খিদিরপাড়া মাদ্রাসায় প্রধান শিক্ষক হিসেবে শিক্ষকতা করে আসছে। দীর্ঘদিন যাবৎ সে মোবাইলসহ নানা রকমের ইলেক্ট্রিক ডিভাইস ব্যবহার করে বিভ্রান্তি মূলক বিভিন্ন ছবি ও তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারসহ ধর্মীয় উস্কানিমূলক ও বিদ্বেষপূর্ণ স্ট্যাটাস দিয়ে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি নষ্টের চক্রান্ত করে আসছে। গত ২৬ জুলাই ২০১৯ তার ব্যবহৃত “মুফতী ছানাউল্লাহ চাঁদপুরী’’ নামের ফেসবুক পেইজ থেকে বাহ্মণবাড়িয়া শহরের মেড্ডা এলাকায় একটি মসজিদে সম্প্রতি আগুন লাগার ঘটনায় অমুসলিমরা জড়িত রয়েছে মর্মে গুজব ছড়িয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে আইনশৃংখলার অবনতি ঘটানোর জন্য উস্কানিমূলক তথ্য প্রচার করেছে যাতে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়। এছাড়াও গত ১৭ জুলাই ২০১৯ তারিখে তার ফেসবুক আইডি থেকে ভারতে গর“র গোশত থাকার সন্দেহে মাদ্রাসায় আগুন দিয়েছে হিন্দু সন্ত্রাসীরা শীর্ষক শিরোনামে একটি “স্ট্যাটাস’’ দিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি ও ধর্মীয় বিদ্বেষের সৃষ্টির অপচেষ্টা করে। এভাবে সে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ধরণের উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রচার করে জনমনে আতংক ও সাম্প্রদায়িত সম্প্রীতি বিনষ্ট করে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি অবনতি ঘটানোর অপতৎপরতা চালিয়ে আসছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।