আমরা তো অনেক ছোটবেলার খেলোয়ার রে ভাই?

733

সময়ের চিন্তা ডট কমঃ নারায়ণগঞ্জ-৪ এর সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, আরে কারে খেলা শিখান?আমাকে খেলা শিখাবেন? আমরা তো অনেক ছোটবেলার খেলোয়ার রে ভাই? বেশি বড় খেলোয়ার হতে পারি নাই? তবে মাথার তার ছিড়া খেলোয়ার ছিলাম আগে। মাথার তার একটু ঢিলা ছিলো তখন। এখন প্রবলেম হয়েছে একটা মানুষকে ফলো করি। বাবা-মায়ের পর আমার নেত্রীকে ভালোবাসি। নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগ তৈরি হয়েছে। আমরা যখন চিৎকার করেছি তখন কেউ চিৎকার করে নাই।
৭ই সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেল ৪টায় শহরের চাষাড়া নবাব সলিমউল্লাহ সড়কে অনুষ্ঠিত জনসভায় স্বাগত বক্তব্যে শামীম ওসমান এ কথা বলেন। দুপুর ৩টা থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছে সাংসদ শামীম ওসমানের জনসভা।দুপুর থেকেই শামীম ওসমান অনুসারী নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে যোগদান করতে শুরু করে জনসভায়। অন্যদিকে জনসভাকে কেন্দ্র করে সভাস্থলসহ সারা শহরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করেছেন নারায়নগঞ্জ জেলা পুলিশ।

শামীম ওসমান আরও বলেন, এই জনসভা নিয়ে কেউ কেউ বলেছেন মিটিং কার? এটা শামীমের মিটিং।এটা আওয়ামীলীগের কর্মীদের মিটিং। কর্মী এবং জনগনের আমার চেয়েও বেশি ক্ষমতা আছে।জনগণের চেয়ে কেউ ক্ষমতাবান না।কেউ কেউ ভাবেন তিনি জনতার চেয়েও বেশি ক্ষমতাবান।আমাদের শরীরে হারাম নাই, যা আছে হালাল। এই হালাল জিনিস কারো সাথে বেঈমানি করেনা। এইটা অনেকের সহ্য হয়না।

শামীম ওসমান আরও বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জে আওয়ামী লীগের অরিজিনাল কর্মীদের সিএস,এসএ, আরএস, পর্চা আছে। তাদের জমিকে খাসজমি বানাইয়া দেয়া হয়। আর যখন খাসজমিদার আওয়ামীলীগ সাজার চেষ্টা করে তখন অনেক কষ্ট লাগে। খারাপ লাগে। সমস্যা কি? আমরা ৫ ভাইবোন। আমরা ৩ ভাই জন্ম নিছি আমার বাবা গুলি খাইছে। আমার বড় ভাইয়ের ছেলে জন্ম নিছে ও ছিলো কাদের বাহিনীতে। আমার ছেলে জন্ম নিছে আমি ছিলাম জেলখানাতে। এটা আমাদের বান্ধা হিসাব। এখন আবার ছেলের বাচ্চা হবে আমার বউ টেনশনে আছে। কিছুদিন পর হয়তো দাদা হয়ে যাব। তাই অনেকের কথা সহ্য করি, কিন্তু তা না। মন কিন্তু আগের চেয়ে বেশি শক্ত আছে।
সভাস্থলে উপস্থিত ছিলেন,নারায়নগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান,জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো.বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, সহ-সভাপতি চন্দন শীল, এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, যুগ্ন সম্পাদক শাহ নিজাম,সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল,
মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী, সোনারগাঁও থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রফেসর শিরিন বেগম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু ও সাফায়েত আলম সানি, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক মোহসিন মিয়া, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইসরাত জাহান স্মৃতি,মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন ও সাধারন সম্পাদক ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান, নাসিক ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল হাসান সজল, নাসিক ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, সোনারগায়ের আওয়ামীলীগ নেতা ও পিরিজপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুম প্রমুখসহ আরও অনেক নেতৃবৃন্দ।