নারায়ণগঞ্জে প্রাইভেটকার চালককে মারধরের অভিযোগে বিক্ষোভ

281

আশিকুজ্জামানঃউল্টো পথে ধীরগতিতে গাড়ি চালানোর অভিযোগে নারায়ণগঞ্জে ভাড়ায় খাটা একটি প্রাইভেটকার চালককে মারধরের অভিযোগে বিক্ষোভ হয়েছে। ওই চালকের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি তাকে তিন দফা মারধর করেছে। বিক্ষোভ চলাকালে আরো কয়েকজন চালকও একই অভিযোগ তুলেন।

গতকাল সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি চালকেরা লিংক রোডের পাশে ফতুল্লার চাঁদমারীতে অবস্থিত স্ট্যান্ড থেকে মিছিল নিয়ে চাষাঢ়ায় অবস্থান করে। সেখানে তারা কিছুক্ষণ অবস্থান করে। পরে বিক্ষুব্ধরা চাষাঢ়া রাইফেল ক্লাবে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমানের সঙ্গে দেখা করে বিচার দাবী করেন ওসির।

গাড়ি চালক মাসুম জানান, তিনি নারায়ণগঞ্জ মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি স্ট্যান্ডে গাড়ি রেখে ভাড়ায় খাটেন। ৮ ডিসেম্বর রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আসাদুজ্জামান গাড়ি ভাড়া করে রাজধানীর বাসাবো যান। যাওয়ার পথে উল্টো রাস্তায় ধীরগতিতে গাড়ি চালানোর কারণে তাকে তিন দফা মারধর করে। প্রতিবাদ করায় তাকে গুলি করে দেওয়ারও হুমকি দেয়।

বিক্ষোভ চলাকালে আরো কয়েকজন চালক অভিযোগ করেন এর আগেও চট্রগ্রাম যাওয়ার সময়ে ধীরগতিতে গাড়ি চালানোর কারণে আরো কয়েকজন চালক মারধরের শিকার হয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, ব্যক্তিগত প্রয়োজনে গাড়ি ভাড়া নেয়া হয়। কিন্তু পুলিশ কর্মকর্তা নেওয়ায় সেই উল্টো পথে বেপরোয়া গাড়ি চালানোর কারণে কয়েকবার বাকবিতন্ডা হয়। কিন্তু তাকে কোন মারধর করা হয়নি।

তিনি বলেন, ‘মারধর করা হলে যেদিন ঘটনা ঘটেছে তখনই তারা আন্দোলন কিংবা অভিযোগ করতো। এতো দিন পর পর কেন করবে। আজ মূলত অবৈধ ব্যাটারী চালিত অটোরিকশার বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযান ছিল সেটাকে ইস্যু করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল। তাও আমরা বুঝিয়ে সমস্যা সমাধান করে দেই।