আড়াইহাজারে এক যাত্রীকে মারধরের ঘটনায় সুপারভাইজারকে অব্যাহতি

356

স্টাফ রিপোর্টারঃআড়াইহাজারে কৃষ্ণপুরা বিআরটিসি বাস কাউন্টারে ইয়ার খান নামে এক প্রবাসী যাত্রীকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সুপারভাইজারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। রবিবার (২২ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় মারধরের খবর পেয়ে পুলিশ আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়েছেন। আহত ইয়ার খান  তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর থানাধীন দড়িকান্দি এলাকার ফোরকান গাজীর ছেলে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কাউন্টারের সুপারভাইজার শামীমকে আটক করেছে। তিনি পটুয়াখালি জেলার রাঙ্গাবালিয়া থানাধীন টংগীবাড়িয়া এলাকার হাফিজুর মল্লিকের ছেলে।

আহত ইয়ার খান জানান, তিনি ও তার বোন পুম্পা ও ভাগ্নিকে নিয়ে বিশনন্দী ফেরিঘাট কাউন্টার থেকে বিআরটিসি বাসে উঠেন। বাসটি আড়াইহাজার পৌছাতে গিয়ে বেশ কিছু স্থানে যাত্রী উঠা-নামা করে। এতে যাত্রীরা উত্তেজিত হয়ে উঠেন।

তিনি আরো বলেন, স্থানীয় কৃষ্ণপুরা কাউন্টারে আসার পর দীর্ঘ সময় ধরে বাসটি থামিয়ে রাখা হয়। এ সময় প্রতিবাদ করা হলে সুপারভাইজার ও তার এক সহযোগী আমার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

বিশনন্দী ফেরিঘাট কাউন্টারের ইজারাদার মাহবুল হক বলেন, যাত্রীদের সাথে দুর্ব্যবহার করায় অভিযুক্ত সুপারভাইজারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আহত যাত্রীর খোঁজ খবর নিয়ে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, কোনো প্রকার অভিযোগ না থাকায় কাউন্টারের ইজারাদারের জিম্মায় ধৃত ব্যক্তিকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।