প্রাইভেটকারে মাদক পাচারকালে ভূয়া সংসদ সদস্য ও তার চালক গ্রেফতার

322

আশিকুজ্জামানঃজাতীয় সংসদের স্টিকার ব্যবহার করে প্রাইভেটকারে মাদক পাচারকালে ভূয়া সংসদ সদস্য ও তার চালক গ্রেফতার। ৮৭৩ বোতল ফেনসিডিল ও ১৭০ পিস ইয়াবা উদ্ধার।  র‍্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধের উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য র‍্যাব ফোর্সেস নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। মাদকের করাল গ্রাস থেকে যুব সমাজ তথা দেশকে বাচাঁতে র‍্যাব নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে বিকালে নরসিংদী জেলার মাধবদী থানাধীন মাজার বাসস্ট্যান্ড (শেখেরচর বাবুরহাট) এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে পরিচালিত র‍্যাব-১১ এর চেকপোস্টে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এর লোগো সম্মবলিত সন্ধিগ্ধ একটি প্রাইভেটকারে তল্লাশী করে ৮৭৩ বোতল ফেনসিডিল ও ১৭০ পিস ইয়াবা উদ্ধারসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো  ১। মোঃ ওয়াসিম মিয়া(৩২) ও ২। মোঃ রুহুল আমিন(৩২)। গাড়ি তল্লাশীকালে মাদক ব্যবসায়ী ওয়াসিম নিজেকে একটি নির্দিষ্ট এলাকার সংসদ সদস্য পরিচয় দেয় ও রুহুল আমিন নিজেকে সংসদ সদস্যের চালক হিসেবে পরিচয় দেয় এবং গাড়ি তল্লাশীতে বাধা সৃষ্টি করে। তল্লাশীকালে মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত ০১টি প্রাইভেটকারও জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আসামী মোঃ ওয়াসিম মিয়া এর বাড়ী বি-বাড়ীয়া জেলার নাসিরনগর থানাধীন টেকানগর এলাকায় ও মোঃ রুহুল আমিন এর বাড়ী ঠাকুরগাঁ জেলার সদর থানাধীন জাহানপাড়া এলাকায়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা প্রাইভেটকারে জাতীয় সংসদের লোগো ব্যবহার করে আইন শৃংখলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে অভিনব কৌশলে দীর্ঘদিন ধরে নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল ও ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। তাদের একমাত্র পেশা ছিল মাদক ব্যবসা। জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরোও স্বীকার করে যে, তারা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অভিনব কায়দায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল ও ইয়াবা বাংলাদেশে প্রবেশ করায় এবং প্রাইভেটকারে জাতীয় সংসদের লোগো ব্যবহার করে ছদ্মবেশে জাতীয় সংসদ সচিবালয় এর পরিচয় দিয়ে বিশেষ কৌশলে নিয়ে এসে নরসিংদী, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছে। মাদকের বিরুদ্ধে র‍্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নরসিংদী জেলার মাধবদী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।