মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি গৃহহীন মানুষ ঘর পাবে-প্রধানমন্ত্রী

270

সময়ের চিন্তাঃ মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি গৃহহীন মানুষ যেন ঘর পায় সেই ব্যবস্থা নেবে সরকার। এমন কথা বলেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমরা চাই একটি মানুষও যেন গৃহহীন না থাকে।

(২ ফেব্রুয়ারী) রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আইডিইবি’র ২৩-তম জাতীয় সম্মেলনে একথা জানায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, পরবর্তী প্রজন্মের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে যাচ্ছে সরকার। সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ে তুলতে দক্ষ মানব সম্পদের ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলেও জানায় প্রধানমন্ত্রী।

এসময় বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও কারিগরি শিক্ষায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার আহ্বান জানায় প্রধানমন্ত্রী। বলেন, দেশের সকল মানুষকে দক্ষ করে তুলতে দেশব্যাপী ‘মাস ট্রেনিং প্রোগ্রাম’ হাতে নেয়া হবে। এসময় কৃষিজমি, জলাধারসহ পরিবেশ, প্রতিবেশ রক্ষা করে প্রকৌশলীদের উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান জানায় তিনি।

ইভিএমের মাধ্যমে স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট প্রদান করায় নগরবাসীকে অভিনন্দন জানায় প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী বলেন, নগরবাসী ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে পুনরায় তাদের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করেছে। এ বিজয় দেশের ব্যাপক উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য বর্তমান সরকারের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতিফলন।

বিএনপির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভোট কারচুপি বিএনপির একটি পুরোনো অভ্যাস। কিন্তু ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভোট কারচুপির কোনো সুযোগ নেই। এ কারণে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে।

নির্বাচনে কম ভোটারের উপস্থিতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নত দেশগুলোতেও এমন চিত্র (কম ভোটারের উপস্থিতি) দেখা যায়।

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের কাজের ক্ষেত্র বাড়বে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতি উপজেলায় একটি করে টেকনিক্যাল স্কুল কলেজ নির্মাণ করা হচ্ছে। ৩২৯ উপজেলায় ২০ হাজার ৫২৫ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব ইন্সটিটিউটের মাধ্যমে দক্ষ নাগরিক গঠনের কাজ ত্বরান্বিত হবে।