জিয়াউর রহমান প্রথম ভোট ডাকাতির রাজনীতি শুরু করেছিলেন

462

সময়ের চিন্তাঃ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান প্রথম এ দেশে ভোট ডাকাতির রাজনীতি শুরু করেছিলেন।

তিনি আজ (৪ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবার কুষ্টিয়ায় তার নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, “জিয়াউর রহমান হাঁ-না ভোট করেছিলেন এবং কোথাও কোথাও ১২০ পার্সেন্ট ভোট পড়েছিল। সেটাও দেশবাসী জানে। বিএনপি ১ কোটি ৩০ লাখ ভুয়া ভোটার বানিয়ে কারচুপির মাধ্যমে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চেয়েছিল। আজিজ মার্কা ভোট করেছিল। ভোট সংক্রান্ত এত অপকর্মের সাথে যারা জড়িত তাদের মুখে ভোট নিয়ে কোন কথা মানায় না।”

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, সিটি কর্পোরেশনের ফল প্রত্যাখান করবে কি করবে না এটা বিএনপির বিষয়। তবে জনগণ বিএনপিকে প্রত্যাখান করেছে সেটি এবারও প্রমাণিত হয়েছে।
তিনি বলেন, এই দল ক্ষমতায় থাকতেও দেশবিরোধী কাজ করেছে, ক্ষমতার বাইরে থেকেও উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিরুদ্ধে কাজ করেছে। তাই এই দলকে নিয়ে মানুষ আর ভাবছে না।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ হাসান মেহেদী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক, আওয়ামী লীগ নেতা প্রকৌশলী ফারুকুজ্জামান, জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন, পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফাত পিপিএমসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে তিনি তার নিজ গ্রাম কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন। বিকেল ৩টায় কুষ্টিয়া শহরের গড়াই নদীর পাড় রেনউইক’র পাশে বধ্যভুৃমির ভিত্তি প্রস্তুর, বিকেল ৪টায় কুষ্টিয়া সিরাজুল হক মুসলিম হাই স্কুলে শহীদ মিনার, ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার উদ্বোধনসহ বেশ কিছু অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করার কথা রয়েছে।