জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি

370

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ করোনার মহামারী সঙ্কটকালে জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট উত্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার বিকালে এই বাজেট উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। উত্থাপিত বাজেটে কিছু পণ্য ও সেবার ওপর কর আরোপ অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ফলে বেশ কিছু পণ্যের দাম কমছে।

১১ জুন  বিকাল সাড়ে ৩ টায় এই বাজেট ঘোষণা করা হবে্। এই বাজেটে প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। বৃহস্পতিবার দুপুরে জতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এক বিশেষ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। ওই বৈঠকে আগামী বাজেটের অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলে সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে।

এরপর নিয়ম অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এতে অনুমোদন দিয়ে স্বাক্ষর করবেন।

বিকাল সাড়ে ৩টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সংসদ অধিবেশনে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য এ বাজেট উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী। মুস্তফা কামালের এটি দ্বিতীয় বাজেট।তাই তিনি এবারের বাজেটের শিরোনাম ঠিক করেছেন ‘অর্থনৈতিক উত্তরণ ও ভবিষ্যৎ পথ পরিক্রমা’।

অর্থমন্ত্রী তার বাজেট বক্তৃতায় বিকাশমান এলপিজি সিলিন্ডার ও অটো ট্যাংক প্রস্তুতকারী শিল্পকে প্রণোদনা প্রদানের লক্ষ্যে কতিপয় নতুন পণ্য অন্তর্ভুক্ত করে বিদ্যমান রেয়াতি সুবিধা সম্প্রসারণ ও যৌক্তিকীকরণ করার প্রস্তাব করেন। ফলে এলপিজি সিলিন্ডারের দাম কমছে।

এছাড়া দাম কমবে মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, পিপিই, ওষুধ, আইসিইউ যন্ত্রপাতি, ফেস শিল্ডসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী, চার্জার কানেকটর পিন, পোল্ট্রি, ডেইরি ও মৎস্য শিল্পে ব্যবহৃত তিনটি উপকরণ, ক্যান্সার প্রতিরোধক ওষুধ উৎপাদনে ব্যবহৃত ৪৩টি উপকরণের দাম, নাইট্রোজেন, অক্সিজেন, কার্বন ডাই অক্সাইড, লিফট প্রস্তুতকারী শিল্পে ব্যবহৃত আমদানি করা সব উপকরণ, অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থাপন ব্যবহৃত বিভিন্ন উপকরণ, কমপ্রেসার প্রস্তুতকারী শিল্পে ব্যবহৃত আমদানি করা সব উপকরণ, জুতা শিল্পের বিভিন্ন উপকরণ, পাউরুটি, বিস্কুট ও কেক এবং স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদিত কৃষি যন্ত্রপাতি। এছাড়া ইস্পাত শিল্পের রিফ্রাক্টরি সিমেন্টের ওপর শুল্ক কমানো হবে।