করোনায় অসহায় হয়ে পড়ার মধ্যে অন্যতম সঙ্গীত এবং মিউজিসিয়ান জগতের মানুষ

500

নির্মল বৈরাগীঃ প্রায় ৬মাস যাবৎ সারা দেশে কোথাও না কোথাও চলছে করোনার জন্য লগডাউন,এই লহডাউনের জন্য ধীরে ধীরে অসহায় হয়ে পড়ছে উচ্চবৃত্ত মধ্যবৃত্ত এবং নিম্ন বৃত্তের মানুষ। তবে সবচেয়ে বেশি যারা অসহায় পড়ছে তাদের কথা কেউ স্মরন করছে না। যারা বেশি অসহায় হয়ে পড়ছে তাদের মধ্যে অন্যতম হল সঙ্গীত এবং মিউজিসিয়ান জগতের মানুষ।এই লাগডাউনের কারনে প্রায় ৬মাস দেশে কোন অনুষ্টান হচ্ছে না যার করনে তাদের ইনকামের পথ পুরোপুরি বন্ধ। এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জের বিশিষ্ট মিউজিসিয়ান(প্যাডিস্ট)নির্মল বৈরাগীকে জিঞ্জাসা করলে তিনি বলেন, ৯৯% মিউজিসিয়ান এবং সঙ্গীত শিল্পি মিউজিক এবং স্টেজে  গান করে সংসার চালায়,এখন পুরোপুরি অনুষ্টান বন্ধ থাকায় তাদের ইনকাম বন্ধ হয়ে গেছে।তাছাড়া, মিউজিক করে এবং সঙ্গিত করে যে টাকা পুঁজি করেছিলাম তা অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে, এখন ধার দেনা করে কোন মতে সংসার চালাই, এভাবে কত দিন চলবে? আর দু একমাস অনুষ্টান বন্ধ থাকলে মা বাবাকে নিয়ে না খেয়ে মরতে হবে।এছাড়ও তিনি বলেন, আমরা সঙ্গীত জগতের মানুষ, মানুষকে আনন্দ দেওয়ার পাশাপাশি পরিচিতি লাভ করি, এই পরিচিতির জন্য যে কোন নিম্ন মানের কাজ আমারা করতে পারি না।অন্যদিকে সরকার নিম্নবৃত্তদের সাহায্য করলেও আমাদের দিকে  নজর দিচ্ছে না। এছাও নির্মল সময়ের চিন্তা পত্রিকার মাধ্যমে সরকারে কাছে প্রার্থনা জানান যাতে করে বাংলাদেশের সঙ্গীতের সাথে জড়িত সকলের  আর্থিক অবস্তা বিবেচনা করে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে সদয় হন।