ফারজানা হোসেন মিষ্টির স্বরচিত কবিতা “বিবর্জিত ভালোবাসা”

163

বিবর্জিত ভালোবাসা

—ফারজানা হোসেন মিষ্টি

 

দূরত্ব তখনই বাড়বে

যখন তুমি চাইবে

আমি আর তোমার সামনে এসে দাঁড়বো না

কখনোই আর পিছু ডাকবো না

সে অধিকার হারিয়েছি আমি।

জানা অজানায় হয়তো

কখনোই তুমি আমার ছিলে না

তাই প্রচন্ড ভালোবেসেও

তোমাকে ধরে রাখতে পারলাম না।

জানো তো জোর করে কখনও কাউকে আটকে রাখা যায় না

যে যাওয়ার সে চলে যাবেই।

যে কখনওই আমার ছিলো না,

তাঁকে হারানোর ভয় আর করি না।

তীব্র থেকে তীব্রতর ভালোবেসেও

তোমাকে বুঝাতে না পারার ব্যর্থতাটা না হয় আমিই নিলাম,

অভিমানের মেঘগুলো না হয়

আমার আকাশেই জমা থাকলো,

বিমর্ষতার পারাবারে তলিয়ে যেতে যেতে না হয় পৌঁছে যাবো অতলান্তে

বুকের জমিনে বারবার ফিরে আসা কষ্টের ঢেউগুলো না হয় জমা রাখবো স্মৃতির ফ্রেমে,

রাংতায় মোড়ানো মিথ্যে প্রেমের বুলিগুলো না হয়

ঘুড়ি বানিয়ে উড়িয়ে দিবো নীল আকাশে

যত ছাড় দিতে পারবো ততই ভালো থাকবো।

আঁকড়ে ধরার বৃথা চেষ্টা করা মানে —- নিজেকে কষ্ট দেওয়া।