নৃত্যশিল্পী গনধর্ষনের শিকার, গ্রেফতার-৪

39

মোক্তার হোসেনঃনারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে এক নৃত্যশিল্পী যুবতী (১৯) গনধর্ষনের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার ওই যুবতীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা যুবতী বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামী করে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ ৪ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলোঃ-সাদীপুর চৌত্রাপাশা গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে ইসরাফিল (৩৩), আব্দুল হকের ছেলে রুহুল আমিন (২০), মৃত লাল মিয়ার ছেলে বাবু (২৬) ও তালেব আলীর ছেলে খোকন আলম (২৬)। 

মামলার এজাহার ও তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক জাকির রব্বানীর কাছ থেকে জানা যায়,গত বুধবার সন্ধ্যার পর উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ভরগাঁও গাব্বাবাড়ি বাদশা মিয়ার নাতী ফাহাদ (৭) নামে এক শিশুর জন্মদিন উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ সাইনবোর্ড থেকে নৃত্যশিল্পীর দলনেতা আরিফ হোসেন বাপ্পির নেতৃত্বে ওই যুবতী (১৯)কে নৃত্য পরিবেশন করে। 

পরে রাত ১টার দিকে গাড়ী না পেয়ে পায়ে হেটে নয়াপুর বাজার ফেরার পথে চৌত্রাপাশা হাবুরটেক দাইয়ানের বাড়ির সামনে আসা মাত্রই লম্পট ইসরাফিল,রুহুল আমিন,বাবু, খোকন, আলমসহ ৭ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল নৃত্যশিল্পী দলনেতা আরিফকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নৃত্যশিল্পী যুবতীকে জোর পূর্বক গণধর্ষন করে।

এব্যাপারে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান পিপিএম বলেন,ধর্ষনের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করে তাৎক্ষণিক ৪ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাকি ৩ জন পালিয়ে যায়, আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান।