চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ পূর্বক হত্যা মামলার একমাত্র আসামী গ্রেফতার

36

সময়ের চিন্তা ডেস্ক রিপোর্টঃ মৃত্যুদন্ডের রায় ঘোষনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে র‌্যাব-১১, নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ পূর্বক হত্যা মামলার একমাত্র আসামী গ্রেফতার করেছে।

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই র‌্যাব সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, মাদক ও ছিনতাইকারীসহ বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর এবং আলোচিত অপরাধের অপরাধীদের গ্রেফতারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। নিবিড় গোয়েন্দা নজরদারী ও পরিকল্পিত আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় অপরাধী গ্রেফতার এবং আইনের আওতায় এনে র‌্যাব ইতিমধ্যেই জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের পলাতক আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিএসসি, আদমজীনগর, নারায়ণগঞ্জের একটি আভিযানিক দল অদ্য ২৮ অক্টোবর ২০২২ খ্রিষ্টাব্দে বিকালে নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াই হাজার থানাধীন বগাদী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে মৃত্যুদন্ডাদেশ প্রাপ্ত পলাতক আসামী নবী হোসেন (৩৭), পিতা- জায়েদ আলী, সাং- বগাদী, থানা- আড়াই হাজার, জেলা- নারায়ণগঞ্জ’কে বিজ্ঞ আদালত কর্তৃক মৃত্যুদন্ডের রায় প্রদানের ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য যে, ২০১০ সালের ১লা জানুয়ারি সোনারগাঁয়ের সাদিপুর এলাকায় এক কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে এবং ভিকটিমের গলায় রুমাল পেচিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে গ্রেফতারকৃত মৃত্যুদন্ড আদেশ প্রাপ্ত আসামি। নিহত ওই কিশোরীর পাশের বাড়িতেই ভাড়া থাকতো আসামী নবী হোসেন। এ ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেন। এই পাশবিক ও নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনা বিভিন্ন পত্র পত্রিকা ও মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে নারায়ণগঞ্জসহ সারাদেশে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। মামলা হওয়ার পর হতেই আসামী নবী হোসেন দীর্ঘ ১২ বছর আত্মগোপনে ছিল। গত ২৭/১০/২০২২ খ্রিঃ তারিখ নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক আসামী নবী হোসেনের বিরুদ্ধে মৃত্যুদন্ডের রায় প্রদান করেন।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহনের জন্য আড়াই হাজার থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।