সোনারগাঁয়ে শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করে ছেলের বউয়ের পলায়ন

96

মোঃ মোক্তার হোসাইন:নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও পৌরসভার হাতকোপা গ্রামে মন্নান (৭০) নামের বৃদ্ধ শ্বশুরকে কুপিয়ে জখম করেছে ছেলের বউ। বুধবার সন্ধ্যায় শ্বশুরকে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। আহত শ্বশুরকে উদ্ধার করে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়ছে। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এলাকাবাসী জানান, গত ৮ মাস আগে মন্নান একটি এনজিও থেকে ১০লাখ টাকা ঋণ তুলেন। ঋণ নেয়ার সময় ঋণের সদস্য হয়ে ছিলেন তার বড় ছেলের বউ চামেলী (৩৫) আক্তার। ঋণের টাকার চেক পেয়ে মন্নান সরল বিশ্বাসে তার ছেলের বউ চামেলী আক্তার এর ব্যাংক একাউন্টে জমা দেন। কিছুদিন পর মন্নান জানতে পারেন তার ছেলের বউ চামেলী তার একাউন্ট থেকে ২লাখ টাকা তুলে খরচ করে ফেলেন। এদিকে মন্নান তার ছেলের বউ চামেলীর কাছে টাকা চাইলে জানতে পারেন মন্নানকে না জানিয়ে চামেলী ২লাখ টাকা তুলে খরচ করে ফেলেছেন এবং বাকি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানান। এনিয়ে মান্নানের সাথে তার ছেলের বউয়ের দ্বন্ধ শুরু হয়। পরে মান্নান ঋণ নেয়া এনজিওতে গিয়ে ঋণের টাকা থেকে যেন টাকা না তুলতে পারে সেজন্য আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিত এনজিও পুলিশের সহায়তার চামেলীর ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করেন। অবশেষে মান্নান নিজে দুই লাখ টাকা ক্ষতিপুরন দিয়ে এনজিওর ১০ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে ছেলের বউ চামেলীকে ৬মাস আগে বাড়ি থেকে বের করে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চামেলী আক্তার বুধবার সন্ধ্যায় তার বাড়িতে এসে মান্নানকে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে পালিয়ে যায়। এসময় আশপাশের লোকজন মান্নানের ডাক চিৎকারের শব্দে তার ঘরে প্রবেশ করে দেখেন মান্নান রক্তাক্ত অবন্থায় মাটিতে পড়ে আছে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ স্বাস্থ্য কমপ্লক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।
এ বিষয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক এস আই (সেকেন্ড অফিসার) পঙ্কজ কান্তি সরকার বলেন ঘটনানাস্থল তাৎক্ষণিকভাবে পরিদর্শন করা হয়েছে,
এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়া দিন রয়েছে।