জিমখানা এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি ও কিশোর গ্যাং লিডার তানভীর গ্রেফতার

199

বিশেষ প্রতিনিধি :-

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৫নং ওর্য়াডের সাধারণ মানুষের আতঙ্ক দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক সম্রাট কিশোর গ্যাং লিডার তানভীর বাহিনীর মূল হোতা টুন্ডা তানভীর নারায়ণগঞ্জ সদর থানা পুলিশের কাছে আটক।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন ১৫নং ওর্য়াডের চিন্তিত মাদক কারবারি ও কিশোর গ্যাং লিডার সন্ত্রাসী তানভীর কে আটক করছে নারায়ণগঞ্জ সদর থানা পুলিশ । আটকের পর যাবতীয় আইনের কাজ শেষে শীতলক্ষ্যা ফাড়ি নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় হস্তান্তর করেন বলে নিশ্চিত করেন নারায়ণগঞ্জ শীতলক্ষ্যা ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল আলাউদ্দিন।

এবিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন কে মুঠোফোনে কল করলে সে ফোনটি রিসিভ করেন নি পরবর্তীতে নারায়ণ সদর থানার তদন্ত অফিসার দীপকের সঙ্গে সাংবাদিক প্রতিনিধি দল যোগাযোগ করলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের তেমন কোন তথ্য দেননি, তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের বললেন আসামি তানভীর কে শীতলক্ষ্যা ফাড়ি আটক করেছে এবং তিনি এখন নারায়ণগঞ্জ সদর থানার হেফাজতে আছেন এবিষয়ে নিশ্চিত করেন। আরো বলেন আসামি তানভীর এখন নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ভিক্টোরিয়া চিকিৎসার জন্য রয়েছেন।

গণমাধ্যম কর্মীরা সঙ্গে সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পৌঁছালে জানা যায় দুর্ধস্ব সন্ত্রাসী ও কিশোর গ্যাং লিডার তানভীর কে সন্ধ্যা ৬টা বিশ মিনিটের সময় নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য সদর থানা পুলিশ নিয়ে এসেছেন এবং এবং ৬. ৫৬ মিনিটের সময় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় নিয়ে হাজত খানায় রাখেন। পরবর্তীতে ওসি তদন্ত দীপক সাহেবের সাথে যোগাযোগ করিলে জানা যায় আসিমকে কোটে পাঠানো হয়েছে এবং তারা অধিক তথ্যের জন্য দশ দিনের রিমান্ড চেয়ে মহামান্য আদালতে হাজির করা হবে।

উল্লেখ করা যাচ্ছে যে নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ১৫নং ওর্য়াড এলাকা জুড়ে এই সন্ত্রাসী কিশোর গ্যাং লিডারের হামলার শিকার হতে হয়েছে নারায়ণগঞ্জ সদর থানার বিভিন্ন নিরিহ সাধারণ মানুষ। ফেব্রুয়ারী মাসের ৬তারিখ হতে ফেব্রুয়ারীর ১৪তারিখ পর্যন্ত সন্ত্রাসী তানভীর বাহিনীর হামলার শিকার হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন একজন সাংবাদিক সহ আরো ৪ জন সাধারণ মানুষ। এখন পর্যন্ত সন্ত্রাসী তানভীরের মাদক সহ ডাকাতি ছিনতাই ধর্ষন মিলে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন থানায় রয়েছে প্রায় ডজন খানেক মামলা। সন্ত্রাসী তানভীরের আটক হওয়ার সংবাদে নারায়ণগঞ্জ সদর থানা এলাকার জিমখানা এলাকার মানুষের মাঝে যেমন এক প্রকারের স্বস্তি ফিরে এসেছে অনেকেই নাম প্রকাশ করতে পারছেনা কিন্তু তাদের গ্রেফতারের পর বলছে একে মেরে ফেলা হোক না হয় আবার যাবি নিয়ে এসে না জানি আবার কোন মায়ের সন্তানকে সন্ত্রাসী হামলা করে এদের হামলায় আর পাচ্ছে না পুলিশও তাহলে জনসাধারণ কি করবে। তাই অনতিবিলম্বে সন্ত্রাসী তানভীর কে দীর্ঘমেয়াদী সাজা দিয়ে শান্তি ফিরিয়ে আনুক সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগণের মাঝে। এই প্রত্যাশা করছেন জিমখানার নিরীহ জনসাধারণ ও ভুক্তভোগী আরো অনেক পরিবারের সদস্য রা।