হাড়িয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে ইউপি সদস্যসহ ৭ জনকে পিটিয়ে জখম

66

মোঃ নুর নবী জনিঃ-নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে হাড়িয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে দুই ইউপি সদস্যসহ ৭ জনকে পথ রুদ্ধ করে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার বৈদ্যোরবাজার ইউনিয়নের হাড়িয়া চৌধুরীপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেনঃ- ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন বাবুু,মোঃ মামুন,আবুল ইউসুফ,শামীম, মুক্তার,ইব্রাহিম, হানিফা।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় আমিনুল ইসলামের সাথে একই এলাকার স্থানীয় ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার মামুনের সাথে পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা হঠাৎ গত বুধবার সন্ধ্যার দিকে মামুন মেম্বার ও বাবু মেম্বার বাড়ি ফেরার পথে হাড়িয়া চৌধুরীপাড়া এলাকায় পৌঁছালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আল আমিন সরকারের ইন্দনে সন্ত্রাসী আমিনুল, তার ছেলে সিফাত তার ভাই জামান,তাইজুল,হুমায়ুন,সোহাগ সহ ৮/১০জনের একটি সংঘবদ্ধ দল নিয়ে ইউপি সদস্য মামুন,বাবুর পথ রুদ্ধ করে চাইনিজ কুড়াল, ছেনা,ছুইছ গিয়ার, লোহার রড ও জিআই পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পেটাতে থাকে। এসময় মামুন এর ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসে। মামুনকে বাঁচাতে তার চাচাতো ভাই মুক্তার,হানিফা অন্যন্যারা এগিয়ে আসলে তাদেরও মারধর করে। এরপর তাদেরকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢামেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

ঐ রাতেই মামুন মেম্বার এর ছোট ভাই সুমন বাদী হয়ে ১৪ নাম উল্লেখ করে ৮/১০ জনকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।