বন্দরে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত

434

নারায়ণগঞ্জ জেলার খ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাজিদুর রহমান বলেছেন,আমি নারায়ণগঞ্জের অনেক থানায় মাদক বিরোধী সভায় অংশগ্রহন করেছি কিন্তু আজকে বন্দরে মাদকের এত ভয়াবহতা তা সত্যিই দুঃখজনক। জনগনের সরাসরি প্রশ্নউত্তর পর্বেই বন্দরে মাদকে যে সয়লাব হয়েছে তা আজ না আসলে জানতাম না। এক সমিক্ষায় দেখা গেছে বাংলাদেশে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ লাখ মানুষ মাদক সেবনে জড়িত। মাদকের বিরোদ্ধে আমাদের মিশন সফল করতে হলে জনগনকে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। যে পরিবারে একজন মাদক সেবী আছে সে পরিবারে অশান্তির কোন অন্ত থাকেনা।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বন্দর থানা প্রশাসনের আয়োজনে ওপেন হাউজ ডে সভায় প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন,বিশে^র মধ্যে জঙ্গীবাদ দমনে বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালণ করছে। প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আজ দেশে জঙ্গীবাদের প্রাদুর্ভাব নেই। অচিরেই মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের একটা তালিকা তৈরী হতে যাচ্ছে। তবে খেয়াল রাখতে হবে যে কোন অবস্থাতেই ভালো মানুষগুলো যাতে কারো ব্যাক্তিগত রোষানলের শিকার হয়ে মাদকের তালিকায় না পড়ে। জনগনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন,আমি আপনাদের থানাধীণ অনেক নিকটেই কামতাল তদন্তকেন্দ্রেই থাকি। আপনারা আমার ফোন নাম্বার নিবেন এবং যে কোন তথ্য দিতে কার্পণ্যতা করবেননা। আপনারা এগিয়ে আসলে মাদক ব্যবসায়ীরা পালানোর পথ খুজে পাবেনা।
বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ একেএম শাহীন মন্ডলের সভাপতিত্বে ও বন্দর ফাঁড়ীর ইনচার্জ এমদাদুল হকের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন বন্দর থানার ওসি তদন্ত হারুনুর রশিদ,মদনগঞ্জ ফাঁড়ীর ইচার্জ তরিকুল আলম জুয়েল,বীরমুক্তিযোদ্ধা জালাল উদ্দিন জালু,ব্যবসায়ী চান মিয়া,বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খান মাসুদসহ শিক্ষক,ডাক্টার,সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেনী পেশার ব্যাক্তিবর্গ।