আব্দুল্লাহ আল মামুন ও টিপুর অত্যাচারে অধিষ্ঠ পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের কর্মচারীরা

795

 

ক্রাইম রিপোর্টার, রাজবাড়ীঃ পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের দলিল লেখক সমতির সাধারন সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন ও তার আপন ছোট ভাই ওবায়দুল হক টিপুর অত্যাচারে অধিষ্ঠ পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের কর্মচারীরা। পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের কর্মচারী নকলনবীশ রশিদ ও আল-আমিনকে অন্যায়ভাবে মারধর করেছে তারা দুইভাই। টাকা না দেওয়াই কি তাদের দোষ?? একজন সরকারী কর্মচারীকে এমনভাবে মারধর করলে সাধারন মানুষের কি অবস্থা তাদের হাতে। পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের দলিল লেখক, মহুরী ও অন্যান্য লোকজন শঙ্কায় জীবনযাপন করছে বলে জানা যায়। নানা কায়দায় ফন্দি করে অনৈতিক ফায়দা লুটছে এই দুই সহদর ভাই। একই পরিবারের লোক হয়ে দুইটি লাইসেন্স দিয়ে বিভিন্ন প্রভাব খাটিয়ে দলিল লেখকদের জিম্মি করে প্রতিদিন মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে তারা দুই ভাই।

পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের সাব-রেজিষ্টার মনিরুজ্জামান মিয়ার সাথে যোগাযোগ করলে মারধরের ঘটনার কথা স্বীকার করেন এবং পরে কথা বলবে বলে ফোন কেটে দেন তিনি।

সুত্র মতে, তাদের দুই ভাইয়ের হাতে পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের দলিল লেখকরা নিরাপদ নয় বলে জানা যায়। তাই প্রসাশনের নিকট নিরাপত্তার দাবী করেন পাংশা সাব-রেজিষ্টার অফিসের দলিল লেখকরা।