ফতুল্লায় বোনকে ইভটিজিং করার প্রতিবাদ করলে ইভটিজারদের হাতে ভাই মারপিটের শিকার

469

নিজস্ব সংবাদদাতা : ফতুল্লা থানাধীন কুতুবপুরের দেলপাড়া এলাকায় বোনকে ইভটিজিং করার প্রতিবাদ করলে ছোট ভাইকে মারধর করে ইভটিজারসহ তার আত্মীয়রা মিলে। এ ঘটনা ঘটেছে গত ৬ সেপ্টেস্বর বিকেল ৪টায়। এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানায় মারপিটের শিকার সিমন ইসলাম বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ইভটিজারদের বিরুদ্ধে।

এ অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লার কুতুবপুর দেলপাড়া মিছির আলী কলেজে পড়ালেখা করে সাদিয়া ইসলাম (১৮)  ও তার খালাতো ভাই সিমন ইসলাম (১৭)। সাদিয়া ইসলামের চলার পথে বৃদ্ধ মশিউর রহমান (৬০) বিভিন্ন সময় নানা ভঙ্গিতে ইভটিজিং কওে আসছে। সাদিয়া প্রতিদিনের ন্যায় গত ৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে দেলপাড়া কবর স্থান সড়ক কোচিং পড়তে যায়। এসময় তার সাথে তার বান্ধুবী রোকাইয়া  জান্নাত মীম (১৮) সঙ্গে ছিলো। অত:পর মশিউর রহমান সাদিয়াকে কু প্রস্তাব নানাভাবে গাল মন্দ করে। এই ঘটনা শুনে সাদিয়ার খালাতো ভাই মো.সিমন ইসলাম ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করলে তাকে এলেপাথারী ভাবে মারধর কওে মশিউর রহমান তার ভাই ওয়াসিম খান (৫৫), শাহীন খান (৫০) এবং সাঈদ সহ তিন চারজনে মিলে মারপিট করে। সিমনের মামা মাসুদ রানা তাদেও কাছে মারমারির কারন জানতে চাইলে তাকেও মারপিট করতে তেড়ে আসে। এসময় আশেপাশের লোকজন এসে ঝগড়া থামায়। পরে সিমন খানপুর হাসপাতাওে চিকিৎসা শেষে থানায় মশিউর রহমান ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এলাকাবাসী জানান, ইভটিজিং নয় পূর্ব শত্রæতার বিরোধের জের ধরে মারামারি হয়।