স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে আড্ডা দেয়াটা এখনকার ছেলেমেয়েদের যেন অভ্যাসে পরিণত

636

সময়ের চিন্তা ডট কম,শহর প্রতিনিধিঃ স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে আড্ডা দেয়াটা এখনকার ছেলেমেয়েদের যেন অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। পিতা মাতা ও শিক্ষকদের কোন বাঁধাই তারা মানছেনা। এতে করে বিরুপ প্রভাব পড়ছে পরিক্ষার ফলাফলে। শনিবার সকালে চাষাড়া শহীদ মিনারে সরেজমিনে দেখা গেল এমনি চিত্র। স্কুল কলেজের সময় গুলোতে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরা মেতে উঠে আড্ডায়। কারো কিছু বলারও থাকেনা। কারন কিছু বলতে গেলেই তাদের উত্তর হয়, আমার পড়ালেখা নিয়ে আপনাকে ভাবতে হবেনা, আপনি বলার কে ?

শনিবার সকালে সদর মডেল থানার এসআই আজাদ কর্তব্য পালনকালে শহীদ মিনারে প্রবেশ করে শিক্ষার্থীদের আড্ডারত অবস্থায় দেখতে পেয়ে জিজ্ঞেস করেন, ক্লাস চলাকালীন সময়ে কেন তারা শহীদ মিনারে আড্ডা দিচ্ছে। এর কোন প্রতিউত্তর তারা দিতে পারেনি। তখন তিনি বলেন, এভাবে যদি তোমরা তোমাদের মূল্যবান সময় নষ্ট করো তাহলে ভবিষ্যতে কিছু করার সুযোগ পাবেনা। বাবা মা তোমাদের পড়ালেখা করতে স্কুল কলেজে পাঠায় সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে। তাদেরকে দিনরাত পরিশ্রম করতে হচ্ছে তোমাদের মানুষের মত মানুষ করতে আর তোমরা চলে এসেছ ক্লাস ফাঁকি দিয়ে আড্ডা দিতে। যদি পরবর্তীতে তোমাদেরকে এভাবে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে আড্ডা দিতে দেখা যায় তাহলে অভিভাবক ডেকে এনে তোমাদের তুলে দেয়া হবে।

তিনি আরো জানান, বর্তমান সময়ে মাদকের নেশায় আসক্ত হয়ে আমাদের যুব সমাজ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। তাই অভিভাবক ও শিক্ষদেরকে শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে আরো খোঁজ খবর রাখা উচিত। তারা কি করছে, কোথায় যাচ্ছে, কার সাথে মিশছে। নইলে হয়তো যে কোন দূর্ঘটনায় পতিত হবে তারা।