আমার বিপক্ষে যে দাড়াইছে তাঁর খবরও আমি রাখি না-শামীম ওসমান

454

সময়ের চিন্তা ডট কমঃ নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী ও বর্তমান সাংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেন, ‘আমার বিপক্ষে যে দাড়াইছে তাঁর খবরও আমি রাখি না।’

১১ই ডিসেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বক্তাবলি ইউনিয়নের ৯ নাম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম চরগড়কুল এলাকায় নির্বাচনী উঠান বৈঠকে শামীম ওসমান এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ‘যারা আগে এমপি ছিল সবাইরে ডাকেন,এবার যে দাড়াইছে তারেও ডাকেন। আমি জানি না কে দাড়াইছে, আমি তাঁর খবরও রাখি না। সবাইরে ডাইকা জিজ্ঞেস করেন, আমি যতো কাজ করছি তাঁর ৫০ ভাগের ১ ভাগও কাজ তারা করে থাকে তাহলে আমি ইলেকশনেই দাড়ামু না।তিনি আরও বলেন, ‘আমার তো বয়স সাতান্ন হয়ে গেছে। আমি মনে করি, আমার সময় শেষ। তারপরও কোন রকমে ১০ বছর পার করে গেলাম।কিন্তু আপনি জঙ্গল বানাইলে সেই জঙ্গলের জংলিগাছ কাটা আপনার পরবর্তী প্রজন্মকে কষ্ট দিবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাস্তা ভাঙ্গা হলে আমার সমস্যা নাই। আমি তো ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে গাড়িতে চইড়া যামুগা। সমস্যা তো হইবো আপনার। এই সিস্টেমটা আর কতোদিন চলবে? কেন নির্বাচনের আগে ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চাইতে হবে? আপনাদের বিবেক নাই, বিবেচনা নাই? আপনারা আমার থেকে ভালো বোঝেন।’

শামীম ওসমান বলেন, ‘আমি কেন ভোট চাইবো? সমস্যা আমার নাকি আপনার? সমস্যা তো আপনার। আপনার ভালো জনপ্রতিনিধি প্রয়োজন। কারণ জনপ্রতিনিধি খারাপ হলে সমাজ নষ্ট হবে, এলাকায় উন্নয়ন হবে না। তাই আপনার যাচাই করে দেখতে হবে কোন জনপ্রতিনিধির আপনার প্রয়োজন। আমি যদি ভালো হই তাহলে আমার পক্ষে কাজ করবেন। আর ভালো না হলে আমার বিপক্ষে কাজ করবেন।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তাবলি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম শওকত আলী, বক্তাবলি ইউনিয়নের ৯ নাম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আমজাদ হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা সিদ্দিকুর রহমান, নাজির হোসেন মোল্লা, জাহাঙ্গীর হোসেন, আলমগীর, রাশেদুল হক সুমন, মো. রাসেল, রুবেল মোল্লা প্রমুখ।