বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার এবং যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

505

সময়ের চিন্তা ডট কমঃ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসন নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক আয়োজিত নারায়ণগঞ্জ জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার এবং যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলে নারায়নগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) । উক্ত অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে আমাদের এই বাংলাদেশের জন্ম হতো না। আমরা এখানে এসপি, ডিসি হিসেবে বক্তব্য দিতে পারতাম না। ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সারা দিয়ে দেশে আপামর জনসাধারন স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্ত  ও ২ লক্ষ মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা এবং স্বাধীন বাংলাদেশ। ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট জাতির জনককে হত্যা করা হয়। যারা হত্যা করেছে, তারা আজও এদেশে ঘাপটি মেরে রয়েছে। তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারে নাই। স্বাধীনতার ইতিহাস ও বঙ্গবন্ধু একসূত্রে গাথা। তিনি বলেন আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধি করেছেন। দেশ উন্নতির শিখড়ে এগিয়ে যাচ্ছে। লক্ষ লক্ষ ইনভেস্টর বাংলাদেশে বিনিয়োগ করছে। আমার কষ্ট হয় যখন বীর মুক্তিযোদ্ধারা আলবদর, আলসাম রাজাকারদের সালাম দেয়। আমি মুক্তিযোদ্ধা সন্তান হিসেবে বলতে চাই, মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আপনাদের সরকারের কাছে চাইতে হবে কেন? আপনারা জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ সন্তান। বর্তমান সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছে।

পুলিশ সুপার আরো বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। আমার কোন পুলিশ সদস্য যদি মাদকের সাথে জড়িত থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গার্মেন্টস শিল্পে কোন চাঁদাবাজ থাকবে না। উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে তিনি বক্তব্য শেষ করেন।

মহান বিজয় দিবস-২০১৮ উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্য ও শহীদ পুলিশ পরিবারের সদস্যদের নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।