বাজারে ছদ্মবেশে যাব, যা ইচ্ছে তা করলেই মামলা

48

জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হক বলেছে, “বাজারে ছদ্মবেশে যাব, যা ইচ্ছে তা করলেই মামলা।” ডিসি আরো বলে, “আপনি একজন ব্যবসায়ী হয়ে ইচ্ছামতো দাম বাড়িয়ে দিবেন এটা কিন্তু হয় না। ডাল এক সপ্তাহ আগে ৯০ টাকা বিক্রি করছেন, এখন তা ১১৫ টাকায় বিক্রি করছেন। এটা কিন্তু হতে পারে না। যার যেমন ইচ্ছা সেভাবেই কি চলবে!”

১১ মার্চ সোমবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলে ডিসি। রমজান মাসে নারায়ণগঞ্জে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখার লক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে সভায় প্রশাসন, ভোক্তা অধিদপ্তর, কৃষি বিপণন অধিদপ্তর, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কর্মকর্তাসহ বিশিষ্ট ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিল। কিভাবে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্য ভোক্তাদের ক্রয়সীমায় আনা যায়, কি কারণে দ্রব্য মূল্য এখনও নিয়ন্ত্রনে আসেনি, এ কাজে কিভাবে সংঘবদ্ধ হয়ে কাজ করা যায় এ সকল বিষয়ে সভায় উপস্থিত অতিথিদের মধ্যে আলোচনা হয়।

সভায় ব্যবসায়ীদের হুশিয়ারি দিয়ে জেলা প্রশাসক বলে, “আমি কিন্তু ছদ্মবেশে যাব। আমি যে ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট, ডিসি কেউ কিন্তু চিনবে না। আমি এবার অনেক জায়গায় ছদ্মবেশে বের হব। তারপরে দেখবেন হঠাৎ স্পেশাল পাওয়ারে মামলা হয়ে গেছে। এক সপ্তাহ আগে ডালের দাম যা ছিল, তার চেয়ে বেশি দামে বিক্রি করার কোন সুযোগ নাই। প্রত্যেকটা দোকানে মূল্য তালিকা টানাতে হবে। মূল্য তালিকা যদি না টানায় তাহলে তার জরিমানা হবে।“