বিষাক্ত বর্জ্য ও দুষিত পানি দিয়ে পরিবেশ নষ্ট, চৈতি কম্পোজিটের বিরোদ্ধে মানব বন্ধন

355

সোনারগাঁ প্রতিনিধিঃ সোনারগাঁয়ের চৈতি কম্পোজিট লিমিটেডের বিষাক্ত বর্জ্য ও দুষিত পানি দিয়ে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ ও স্বাস্থ্য ঝুকিতে এলাকার মানূষ। তার প্রতিবাদে মানব বন্ধন করেছে স্থানীয় এলাকা বাসী।

২২ জুন সোমবার চৈতি কম্পোজিট লিমিটেডের সামনে এই মানব বন্ধন করা হয়। মানুষে জমি জবর দখল করে প্রকাশ্যেই অবৈধভাবে পানির লাইন করার জন্য মোটা পাইপ বসানো হচ্ছে। সাদিয়া নাসরিন বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ও পরে ইউএনও অফিসে অভিযোগ করে।যার অনুলিপি অনেক জায়গায় দেয়া হয়েছে কিন্তু কোন প্রতিকার না পেয়ে আজ মানব বন্ধন করে এলাকাবাসী। ভুক্তভোগী জানায়, আমি অভি্যোগ করেছি ইউএনও অফিস থেকে কেউ আসে নাই  কিন্তু আজ তিনি এসেছেন। তবে কোম্পানীর কর্মকর্তা কেউ ণেই, সবায় গা ঢাকা দিয়েছে। আসল রহস্য কোথায় মাই জানি না।

এব্যপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম বলেন, আমি এসে তাদের কাজ করা প্রমান পেয়েছি। আমি কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিব। আমি পরিবেশ দপ্তরে অভিযোগ জানাব যাতে করে স্থায়ীভাবে কাজ বন্ধ করা যায়।

এব্যাপারে চৈতি কম্পোজিট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা  পরিচালক আবুল কালামকে তার মোয়াবাইলে কল করলে তিনি কল ধরেনি।

এলাকাবাসীর প্রশ্ন বিষাক্ত বর্জ্য ও দুষিত পানি নিঃষ্কাশনের প্রমান পেয়ে তাদের বিরোদ্ধে আইনত ব্যবস্থা কেন নেয়নি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। পরিবেশ নষ্ট করছে প্রমান পেয়েও কেন তিনি পরিবেশ অধিদপ্তরকে জানিয়ে স্থায়ীভাবে বন্ধ করার ব্যবস্থা করবেন। এলাকাবাসী আরও জানায়, তিনি পত্রিকায় নিউজ পড়েছে, অভিযোগ পেয়েছে কিন্তু কোন ব্যবস্থা নেয়নি বা তিনি আসেননি বা কাউওকে পাঠিয়ে তদন্ত করেনি। আজ এলাকাবাসী মানব বন্ধন করছে, তিনি এসছেন, কারখানার মালিকপক্ষ বা কর্মকর্তা কেউ নাই। এটার কিসের ইঙ্গিত। এর আগের ঘোটনাও সোনারগাঁবাসীসহ দেশবাসী জানে। আমরা স্বচ্ছ বিচার চাই। স্বাস্থ্য বান্ধব পরিবেশ চাই, অত্যাচার থেকে মুক্তি চাই।