সোনারগাঁয়ের প্রতারক, নারী কেলেংকারীর মূল হোতা মাজহারুল জেলে

214

নিজস্ব প্রতিনিধি : নারায়নগঞ্জের সোনারগায়ের প্রতারক, লম্পট নারী কেলিকেংকারীর হোতা, সাজা প্রাপ্ত আসামী জেল হাজতে।

পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রী রওশন আরা জাহান(৩৩) ও প্রেমিক মাজহারুল ইসলাম (৪২)এর ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডের রায় ঘোষণা করেছে আদালত। স্বামী মোঃ মাসুদুর রহমান সরকারের করা সিআর মামলায় অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ৪র্থ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব কাউসার আলম ৪ মার্চ দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি রওশন আরা জাহান উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের হামছাদি পুর্বপাড়ার মৃত সুবেদ আলী প্রধানের কন্যা এবং মাজহারুল ইসলাম পিরোজপুর ইউনিয়নের কান্দারগাঁও গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে।

মামলার এজাহারসুত্রে জানা গেছে, বিগত ২০০৫ইং সনের মে মাসের ১০ তারিখে উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের হামছাদি গ্রামের মৃত আলী আজগর সরকারের ছেলে মামলার বাদী মোঃ মাসুদুর রহমান সরকারের সাথে একই গ্রামের সুবেদ আলী প্রধানের কন্যা রওশন আরা জাহানের ইসলামি শরীয়াহ মোতাবেক বিবাহ হয়। তাদের ১ ছেলে ও ১ মেয়ে সন্তানসহ সাংসারিক জীবন চলাবস্থায় স্ত্রী রওশন আরা জাহান মাজহারুল ইসলামের সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে ২০২১ সনের মার্চ মাসের ১২ তারিখে স্বামীর ঘরে আলমারিতে রক্ষিত নগদ ১২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা ও ৮ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে স্ত্রী রওশন আরা জাহান মাজহারুল ইসলামের সাথে পালিয়ে যায়। এঘটনায় স্বামী মোঃ মাসুদুর রহমান সরকার নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ( ক অঞ্চল) আদালতে গত ২০২১ইং সনের মার্চ মাসের ২৪ তারিখে ৪০৬/৪২০/৪৯৮/
৫০৬/৩৪/১০৯ দঃবিঃ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। এদিকে মামলার রায় ঘোষনার সময় সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা অনুপস্থিত ছিল।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার প্রতারক ও পরকীয়া প্রেমিক মাজহারুল ইসলাম বিজ্ঞ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাকে জামিন না দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করেন।