‘জিয়া হলের জায়গায় মাঠ ও মিউজিয়াম হবে’-শামীম ওসমান

28

নারায়ণগঞ্জ-৪’র এমপি একেএম শামীম ওসমান বলেন, “নারায়ণগঞ্জের টাউন হলে আমার বাবার সভাপতিত্বে জাতির পিতা ছয় দফা ঘোষণা করেছেন। এটার কাগজ পেয়েছি আমরা। জিয়া হলের জায়গায় একটি খোলা মাঠ ও মিউজিয়াম হবে। আমাদের পূর্ব পুরুষরা যাই করে গেছে তাদের স্মৃতি আমরা সেখানে ধারণ করে রাখব। ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জকে আমি পিওর পানির প্রকল্পের আওতায় নিয়ে আসব। প্রয়োজনে শহর ও বন্দরকেও এটার আওতায় নিয়ে আসব।”

২৩ মার্চ  শনিবার বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের উদ্যেগে বাঁধন কমিউনিটি সেন্টার ও গ্র্যান্ড হলে একটি ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। সভায় এসোসিয়েশনের সভাপতি লিটন সাহার সভাপতিত্বে কার্যকরী পরিষদের নেতৃবৃন্দ ও ব্যবসায়ীগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় এমপি আরও বলেন, “সারা দেশে মনুষ্যত্বের অভাব। একদিকে মানবাধিকারের কথা বলে অন্যদিকে গাজায় মানুষদের মারছে। আমরা ধর্মও পালন করি আবার গোডাউনে সব জমা করি বেশি লাভ করতে। আমি দোয়া চাই আপনাদের কাছে। আমরা ঢাকা নারায়ণগঞ্জ সংযোগ সড়ক করছি, জুন মাসে শেষ হবে৷ এটা অত্যান্ত দৃষ্টিনন্দন রাস্তা হবে। এর পরেই বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হতে যাচ্ছে,মেডিকেল কলেজ হবে। শেখ কামাল আইটি ইনিস্টিউট ও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের কাজ শুরু হয়ে গেছে।”

শামীম ওসমান বলেন, “ঢাকা নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কের কাজ খুব দ্রুত সম্পর্ন হবে। এ সড়কটি একশ বিশ ফিট চওড়া হবে। আজ আট বছর নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের পাশে বিল্ডিংটি পড়ে আছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে কাগজ দিয়েছি। এটা হওয়ার পথে। আমি চাই এখানে হার্ট ও নিউরো ইনিস্টিউট করব। দোয়া করবেন এটা যেন করতে পারি। আমার মায়ের নামে নাগিনা জোহা সড়কের কাজ হয়েছে। আমি ব্যাবসায়ীদের দাওয়াত দিচ্ছি। নাগিনা জোহা সড়কের পাশে ইউরোপের মত করে ওয়াকওয়ে করার জন্য চেষ্টা করছি। সেলিম ওসমানের জন্য দোয়া করবেন। তিনি অসুস্থ শরীর নিয়ে আল্লাহর ঘরে গিয়েছেন। আমরা সবাই মিলে কাজ করছি দেখে অনেকের সমস্যা হচ্ছে। তারা সামনে ঝামেলা করবে।”