ভালুকায় ৭০ বয়সের বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন অভিনেত্রী-সুজানা

549

এস.এম রুবেল আকন্দ: দেশের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সুজানা জাফর একজন সমাজ সচেতন মানুষ হিসেবেও সমাদৃত। তিনি বছর কয়েক ধরে একজন ব্যবসায়ী হিসেবে সুপরিচিত। বছর জুড়েই এতিম ও বৃদ্ধদের জন্য নানারকম উদ্যোগ লক্ষ করা যায়।তিনি করোনা পরিস্থিতিতেও বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার ভালুকা ইউনিয়নের পাড়াগাঁও এলাকার এক বৃদ্ধা মহিলার দায়িত্ব নিলেন সুজানা। আমেনা খাতুন নামের এই বৃদ্ধার বয়স ৭০ এরও বেশি। তার স্বামী মারা গেছেন অনেক আগেই। তিনি নিঃসন্তান। মানুষের কাছে চেয়ে চেয়ে খাবার খেয়ে দিন চলতো তার।

ময়মনসিংহ জেলার ‘মানবতার হাত ফাউন্ডেশন’র রাফির মাধ্যমে সুজানা করোনা ভাইরাসের সময়ে অসহায় দুঃখী মানুষদের বিভিন্ন ধরনের সাহায্য সহযোগীতা করেছেন। সে আতঙ্কের সময়েই এই বৃদ্ধার সম্পর্কে জানতে পারেন, আমেনা এমন অবস্থা দেখে নিজে থেকেই আমেনা খাতুন দায়িত্ব নিলেন সুজানা।

রাফি জানান, বৃদ্ধার জন্য খাবারের ব্যবস্থা এবং তার ঘরে থাকার জন্য খাট থেকে শুরু করে বিভিন্ন জিনিস পত্রের ব্যবস্থাও করেছেন। শুধু তাই নয়, এই বৃদ্ধাকে দাদি বলে ডাকেন সুজানা। আমেনার নাতনি হিসেবে এখন থেকে উনার সব দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন এ অভিনেত্রী।

শুধু এ আমেনা নয়, ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন জেলা, উপজেলার অনেক অসহায় দুঃখী মানুষদের মাঝে সুজানার সাহায্যে সহযোগিতা হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

সুজানা এখন দুবাইতে রয়েছেন। সেখান থেকে তিনি বলেন, ‘মানুষের জন্য কিছু করতে পারলে আমার ভালো লাগে। সবসময়ই চেষ্টা করি মানুষের পাশে থাকার জন্য। আমি রাফির মাধ্যমে জানতে পারি তার সম্পর্কে। তার কেউ নেই, অনেক কষ্টে দিনযাপন করছেন। তাই সুজানা বলেন, আমি আমেনা খাতুনের সব দায়িত্ব নিয়েছি সে এখন থেকে আমার দাদি।