সিআইডি কন্সষ্টেবলকে চোঁখ বেঁধে ছিনতাইকালে প্রাইভেটকারসহ আটক-৩

375

 

বন্দর প্রতিনিধিঃ বন্দরের মদনপুরে নগদ ১০হাজার টাকা,১টি ট্যাব ও ১টি স্যামসাং মোবাইল হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ৩ ছিনতাইকারীসহ একটি প্রাইভেটকার আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কাচপুর হাইওয়ে থানার সামনে এ ছিনতাইয়ের ঘটনাটি ঘটে। ধৃত ছিনতাইকারীরা হচ্ছে মাদারীপুর জেলার শিবপুর থানার উতরাইল গ্রামের দাদন মিয়ার ছেলে আমিনুল ইসলাম(৩০),চট্রগ্রাম জেলার শিতাকুন্ড থানার বাড়ইয়া গ্রামের আবুল বাশার মিয়ার ছেলে ফরিদ মিয়া(৩০) ও যশর জেলার অভয়নগর থানার শংকর পাশা গ্রামের সানাউল্লাহ মিয়ার ছেলে ইউসুফ(৩৫)।

এ ব্যাপারে সিআইডি কন্সষ্টেবল ঈমাম হোসেন বাদী হয়ে ৩ ছিনতাইকারীকে আসামী করে  দ্রæত বিচার আইনে দায়ের করা হয়েছে। যার মামলা নং ৪১(১১)১৮ইং।

 মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা হেডকোয়ার্টার থেকে সিআইডি কন্সষ্টেবল ঈমাম হোসেন নারায়ণগঞ্জ সিআইডি অফিসে আসার জন্য গাড়ীর সন্ধান করছিল। সন্ধানকালে সাইনবোর্ড মোড়ে হটাৎ একটি (ঢাকা মেঃ-গ ২৫-৮৯৭৮) নম্বরের সাদা রঙ্গের প্রাইভেটকার ষ্টপিজ করে। এ সময় ঈমাম হোসেন ওই প্রাইভেটকার নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাবে বলে ৫০টাকা ভাড়ায় উঠে। কিছুদুর যাওয়ার পরই চালক প্রাইভেটকারটি ইউটার্ন করে কাচপুরের দিকে রওয়ানা হয়। ঈমাম হোসেন কোথায় যান বলে চিৎকার করলে প্রাইভেটকারের পিছনে বসা ২ ছিনতাইকারী তাকে গামছা দিয়ে হাত,পা ও চোখ বেধে তার সঙ্গে থাকা ব্যাগ থেকে নগদ ১০হাজার টাকা,১টি ট্যাব ও ১টি স্যামসাং মোবাইল হাতিয়ে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে কাচপুর হাইওয়ের সামনে থেকে মদনপুর আসলে তার বাধন খুলে গাড়ী থেকে ফেলে পালিয়ে যায়। এ সময় ঈমাম হোসেন প্রাইভেট কারের নাম্বার মূখস্ত করে মদনপুরে হাইওয়ে পুলিশের টহলরত পার্টির এসআই সামাদকে অবহিত করলে প্রাইভেটকারটি অনুসন্ধান করে আটক করতে সক্ষম হয়।

ধৃত ৩ ছিনতাইকারীকে শুক্রবার দুপুরেই ৭দিনের রিমান্ড চেয়ে কোর্টে প্রেরন করা হয়েছে।